এবার লন্ডনে কৃষ্ণাঙ্গের গলায় হাঁটু

কৃষ্ণাঙ্গের গলায় হাঁটু তুলে সাসপেন্ড লন্ডন পুলিশ

ইউরোপ লিড নিউজ

লন্ডনে কৃষ্ণাঙ্গের গলায় হাঁটু তুলে সাসপেন্ড হয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা। মারকাস কাউটেন নামে ৪৮ বছরের ওই কৃষ্ণাঙ্গ রাস্তায় ছুরি নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে এই অভিযোগ পেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করতে গিয়েছিল পুলিশ।

মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে একইভাবে নিহত হয় কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড। এ হত্যাকাণ্ড ঘিরে যুক্তরাষ্ট্র ও এর বাইরে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ শুরু হয় যা এখনও অব্যাহত রয়েছে।এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উত্তর লন্ডনের ইজ়লিংটনের এ ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় শোরগোল। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্ত ওই পুলিশ অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়।

ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, হাতকড়া পরা মারকাসকে মাটিতে ঠেসে ধরেছে দুই অফিসার। একজনের হাঁটু তার গলায়, হাত দিয়ে মাথাটা চেপে ধরা। মারকাস বলছেন, ‘আমার গলা থেকে নামুন… আমি কোনো ভুল করিনি… গলা থেকে নামুন।’

এ ঘটনা ‘অত্যন্ত উদ্বেকজনক’  বলে ব্যাখ্যা করেছেন লন্ডন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার স্টিভ হাউস। তিনি জানান, ওই কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে এসে এক পুলিশ ডাক্তারের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘মনে হচ্ছিল ওই লোকটিকে মেরেই ফেলবে পুলিশ। ঠিক যেভাবে ফ্লয়েডকে মারা হয়েছিল।’

ডেপুটি পুলিশ কমিশনার স্টিভ বলেছেন, ‘অপরাধীদের অনেক সময়েই যে কায়দায় ধরা হচ্ছে তা বেশ চিন্তার। প্রশিক্ষণের সময়ে এসব শেখানো হয় না।’ তিনি আরো জানান, এক পুলিশ অফিসারকে সাসপেন্ড করা হলেও অন্য একজনকে আপাতত কাজের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তাকে নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেন, এ ঘটনায় আমি অত্যন্ত বিব্রত। দ্রুত নিরপেক্ষ তদন্ত হবে এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

২৫ মে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের বৃহত্তম শহর মিনিয়াপোলিসে পুলিশি হেফাজতে হত্যার শিকার হন জর্জ ফ্লয়েড। ওই হত্যাকাণ্ডের পরপরই একজন প্রত্যক্ষদর্শীর ধারণ করা ১০ মিনিটের ভিডিওতে দেখা গেছে, হাঁটু দিয়ে নিরস্ত্র ফ্লয়েডের গলা চেপে ধরে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে ডেরেক চাওভিন নামের ওই শ্বেতাঙ্গ পুলিশ সদস্য। জর্জ ফ্লয়েড যখন বারবার বলছিলেন তিনি শ্বাস নিতে পারছেন না; ডেরেক চাওভিন তখন বলছিল, কথা বলতেও অনেক অক্সিজেন লাগে।

আরও পড়ুন-

নাগরিকত্ব লড়াইয়ে ব্রিটেনে ফিরতে পারবেন আইএসবধূ শামীমা

যুক্তরাজ্যে নিষিদ্ধ হল হুয়াওয়ের পন্য ও ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *