https://www.theasianjournals.com/wp-content/uploads/2021/06/শরিয়া-আইন-মালয়েশিয়া.png

শরিয়া আইন জোরদার করছে মালয়েশিয়া

এশিয়া প্যাসিফিক লিড নিউজ

কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া-ইসলামি শরিয়া আইন আরও জোরদার করতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া। ইতোমধ্যে একটি আইন সংশোধনের প্রস্তাব দিয়েছে দেশটির সরকার। প্রধানত ইসলাম অবমাননা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‌‘নারী-পুরুষ সমকামী, উভকামী ও রূপান্তরকামী বা এলজিবিটির বিস্তার’ বন্ধে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

A Malaysian government task force on Friday proposed amendments to sharia law that would allow action to be taken against social media users for insulting Islam and promoting the LGBT lifestyle.

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়ার ইসলামি শরিয়া আইনে পুরুষ সমকামিতা অথবা সমলিঙ্গের কার্যক্রম অবৈধ। তবে এসব অভিযোগে কাউকে দোষী সাব্যস্ত করার ঘটনা বিরল। তবে সম্প্রতি দেশটিতে সমকামিতার প্রচার-প্রচারণা বেড়ে যাওয়ায় নতুন করে সামাজিক অস্থিরতা তৈরি হয়েছে।

চলতি সপ্তাহে এক বিবৃতির মাধ্যমে দেশটির ধর্মীয় কল্যাণ বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত উপমন্ত্রী আহমদ মারজুক শারি বলেছেন, চলতি মাসে নারী-পুরুষ সমকামী, উভকামী ও রূপান্তরকামীদের প্রাইড মান্থ কর্মসূচির অংশ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উদযাপনের বিভিন্ন পোস্টের প্রতিক্রিয়ায় শরিয়া ফৌজদারি আইনে সংশোধনের প্রস্তাব আনা হয়েছে।

মারজুক শারি আরও বলেন, আমরা দেখেছি নির্দিষ্ট কিছু পক্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস এবং ছবি আপলোড করেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এলজিবিটিদের জীবনাচারের প্রসারের চেষ্টা হিসেবে ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করা হয়েছে।

তিন কোটি ২০ লাখ মানুষের দেশ মালয়েশিয়ায় জাতিগত মালয় মুসলিমের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশেরও বেশি। দেশটিতে দ্বৈত আইনি ব্যবস্থা রয়েছে। মুসলিমদের জন্য নাগরিক আইনের পাশাপাশি ইসলামিক ফৌজদারি ও পারিবারিক আইন চালু আছে।

আহমদ মারজুক শারি বলেছেন, প্রস্তাবিত আইনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন ধরনের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে কেউ ইসলাম ধর্মের অবমাননা এবং অন্যান্য শরিয়া ফৌজদারি অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাগুলো ব্যবস্থা নিতে পারবে।

ইসলাম ধর্মের অবমাননা এবং এলজিবিটির প্রসার ঠেকাতে সরকারের গঠিত টাস্কফোর্সে দেশটির ইসলামি উন্নয়ন বিভাগ, যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়া মন্ত্রণালয়, অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস এবং পুলিশের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।

রয়টার্স বলছে, গত কয়েক বছরে মালয়েশিয়ায় এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রতি ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে শরিয়া আইনে সংশোধনী আনার এই প্রস্তাব উঠেছে।

এর আগে ২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের পদযাত্রায় এলজিবিটি কর্মীদের অংশগ্রহণের পর দেশটির একজন মন্ত্রী এবং অন্যান্য মুসলিম সংগঠনগুলোর সদস্যরা প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করেন। ওই বছর সমকামিতার চেষ্টার দায়ে দেশটিতে পাঁচজনকে জরিমানা, কারাদণ্ড, বেত্রাঘাতের সাজা দেওয়া হয়।

[আরও পড়তে পারেন: টিকা নিলেই মুরগি উপহার ইন্দোনেশিয়ায়]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *